বান্দার হক আল্লাহ পাক মাফ করবেন না

তরজুমানে আকাবির আরেফবিল্লাহ শায়খুল হাদীস শায়খুল উলামা হযরত মাওলানা শাহ আবদুল মতীন বিন হুসাইন সাহেব দামাত বারাকাতুহুম এর  “মালফুযাত”

এক হিসাবে আল্লাহর হকের চেয়ে বান্দার হকের ফিকির বেশি হওয়া উচিত। আল্লাহর হক আল্লাহর কাছে মাফ চাইলে তিনি মাফই করে দিলেন। কিন্তু বান্দার হক ততক্ষণ পর্যন্ত মাফ হবে না যতক্ষণ না বান্দা নিজে মাফ করে দেয়।
অনেকেই ভয়ঙ্কর ব্যাধি এবং ক্যান্সারে আক্রান্ত যে, আমার এলেম আছে, আমল আছে, আমি নামায পড়ি, আমি ভালো মানুষের ছেলে, বড় বংশে জন্ম হয়েছি, আমাকে সবাই ভদ্র এবং ফেরেশতা মনে করে। কিন্তু আমি একজনের হক নষ্ট করলাম সেটা নিয়ে কোনো ধান্দা নেই, ব্যথা নেই। এই মানুষ এখনো দ্বীন বোঝে নি, ইসলাম বোঝে নি, আখেরাতের রাস্তা বোঝে নি, জান্নাতের গেট খোলার রাস্তা এখনো চিনে নি। সে অজ্ঞ মুসলমান। সে মাদ্রাসায় পড়লে, পড়ালে এখনো পাকা জাহেল। জাহেল তাকে বলে যে আল্লাহর হক বোঝে না, চেনে না। আল্লাহর ভয় যার মধ্যে থাকে না। সারা দুনিয়ার এলেম আছে, আমল আছে, কিন্তু আল্লাহর নাফরমানি থেকে বাঁচে না সে কোরআনের আলোকে জাহেল মানুষ। এই দৃষ্টিতে চিন্তা করলে আমরা আলেম কয়জন বের হব! এমনি দাওরা পাশ আলেম তো আমাদের অনেকেই। কিন্তু আল্লাহপাকের হুকুম পাশ আলেম, তাকওয়া পাশ আলেম, আল্লাহর ভয় পাশ আলেম, আখেরাতের ফিকিরে পাশ আলেম আমরা কয়জন!

You may also like...

error: Content is protected !!