Web Analytics Made Easy - StatCounter

সোফা, আলমারী, এসি ইত্যাদির যাকাত দিতে হবে?

নাসির – বনানী, ঢাকা
প্রশ্ন: আমি ব্যবসায়ী। প্রতি বছর নিয়মিত আমার মালের যাকাত আদায় করে থাকি। এ বছরও আদায় করেছি। এবার যাকাত আদায়ের দিনগুলোতে আমার এক বন্ধু আমার বাসায় এসে দেখে যে, আমি যাকাতের হিসাব নিয়ে ব্যস্ত। তখন সে আমার বাসার দামি দামি সামান পত্র যেমন ৩/৪ রঙের সোফা, দু-তিন কালারের ফার্নিচার, একাধিক কাঠের আলমারী, ১০/১৫ ডিনার সেট, ওভেন, এসি, ওয়াশিং মেশিন ইত্যাদি। সে আমাকে জিজ্ঞেস করে এসব সরঞ্জামাদির দাম কত? আমি বললাম; ১০/১২ লাখ টাকা হবে। সে বলল, এগুলির যাকাত আদায় করেছিস? কত দিন হয় এগুলি নিলি? আমি বললাম, দেড় বছরের মতো হবে। সে বলল, এগুলোর যাকাত দিতে হবে। আমি বললাম, কেন? আমার প্রয়োজনীয় সামানের কেন যাকাত দিব? আমি তো শুধু ব্যবসায়ী পণ্যের যাকাত আদায় করে থাকি। হুযূরের নিকট জানার বিষয় হল, আমার ব্যবসার মালের যাকাত আদায়ের সময় কি আমার ঘরের এ পণ্যগুলোরও যাকাত দিতে হবে? তার কথা কি ঠিক?
উত্তর: আপনার বন্ধুর কথা ঠিক নয়। ঘরের আসবাব-পত্র ও ব্যবহার সামগ্রীর উপর যাকাত আসে না। তাই প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে আপনাকে উল্লেখিত পণ্যগুলোর যাকাত দিতে হবে না। তবে মুসলমানদের উচিত যাকাতের পাশাপাশি সাধ্যানুযায়ী নফল দান-সদকা করা।
কিতাবুল আছল ২/৯৭; আলমাবসূত, সারাখসী ২/১৯৮; আলহাবিল কুদসী ১/২৬৯; তাবয়ীনুল হাকায়েক ২/২৩; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৩/১৭৩
সৌজন্যে: মাসিক-আলকাউসার

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + thirteen =

error: Content is protected !!